আনোয়ারায় সন্ত্রাসী হামলাঃ,সীমানা দেওয়াল ভাংচুর একজনকে মারধর

Total Views : 38
Zoom In Zoom Out Read Later Print

সাদ্দাম হোসেন , আনোয়ারা প্রতিনিধি ।।

আনোয়ারা থানাধীন পশ্চিম বরৈয়া গ্রামে এডভোকেট মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন এর বাসভবনে হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা।এসময় এডভোকেটের মেঝ বোন কে কিল,ঘুষি ও লাথি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেদনাদায়ক জখমসহ সীমানা দেওয়ার ভাংচুর করিয়া প্রায় ২ লক্ষ টাকার মূল্যের ক্ষয় ক্ষতি সাধন করেন।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘ দিন ধরে এডভোকেট কর্ম সূত্রে স্ব-পরিবার চট্টগ্রাম শহরে বসবাস করে।তার মেঝ বোনকে বাড়ীতে একা পেয়ে এলাকার মৃত বাদশা মিয়া ছেলে মোহাম্মদ হোসেন এবং মৃত আবদুর রহমান ছেলে মোহাম্মদ রফিক সহ ৩/৪ জন সন্ত্রাসী নিয়ে বাড়ীর সীমানা দেওয়াল ভাংচুর করে বাচন আরা বেগমের শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেদনাদায়ক জখম করেন। তার চিৎকারে আমরা সহ আশে-পাশের লোকজন আগাইয়া আসিলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন সন্ত্রাসীরা।পরবর্তীতে আমাদের সহায়তায় আহত বাচন আরা বেগমকে আনোয়ারা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চিকিৎসা করায়।
গত মঙ্গল বার বেলা অনুমান ১২ টায় মুজা-শোকরউল্লা তালুকদার বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে। এই বিষয় জানতে চাইলে এডভোকেট মোহাম্মদ নাছির উদ্দীন বলেন, আমি দীর্ঘদিন ধরে সুনামে সহিত চট্টগ্রাম জেলায় আইনজীবী সমিতিতে আইনজীবী হিসাবে আইন পেশায় নিয়োজিত আছি। আমার পেশাগত ও সন্তানদের পড়া লেখার কারণে চট্টগ্রাম শহরে বসবাস করে আসতেছি। আমি মাঝে মধ্যে আমার মা-বাবা কবর জেয়ারত করতে নিজ বাড়ীতে যায়। আমি বাড়ীতে না থাকায় গত মঙ্গল বার বেলা অনুমান ১২ টায় আমার মেঝ বোনকে বাড়ীতে একা পেয়ে এলাকার মৃত বাদশা মিয়া ছেলে মোহাম্মদ হোসেন এবং মৃত আবদুর রহমান ছেলে মোহাম্মদ রফিক সহ ৩/৪ জন সন্ত্রাসী নিয়ে বাড়ীর সীমানা দেওয়াল ভাংচুর করে আমার মেঝ বোন বাচন আরা বেগমকে কিল,ঘুষি ও লাথি মারিয়া শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেদনাদায়ক জখমসহ সীমানা দেওয়ার ভাংচুর করিয়া প্রায় ২ লক্ষ টাকার মূল্যের ক্ষয় ক্ষতি সাধন করেন।
এই বিষয় থানায় অভিযোগ হয়েছে। আনোয়ারা থানায় অভিযোগ তদন্তকারী এসআই ফারুক বলেন,আনোয়ারা থানাধীন পশ্চিম বরৈয়া গ্রামে মোহাম্মদ হোসেন (৩০)পিতা-মৃত বাদশা মিয়া এবং মোহাম্মদ রফিক (৪০)পিতা -মৃত আবদুর রহমান উভয় সাং- পশ্চিম বরৈয়া, মুজা- শোকরউল্লা তালুকদার বাড়ী,ডাকঘর-পূর্ব বরৈয়া,থানা-আনোয়ারা,জেলা-চট্টগ্রামসহ আরো ৩/৪জন অজ্ঞাতনামা অভিযোগ পেয়েছি । অভিযোগ নং-১৯২৯/১৮। অভিযোগের আলোকে আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

See More

Latest Photos