বিভিন্ন ক্যামিকেল দিয়ে উৎপাদন হচ্ছে শিশুদের বিদেশি কসমেটিকস।

Total Views : 112
Zoom In Zoom Out Read Later Print

ক্রাইম নিউজ ডেস্ক।

অতিমুনাফালোভী ব্যবসায়ীদের জন্য ধ্বংস করছে শিশুদের জীবন। যেই প্রসাধনী শিশুর কোমল শরীরকে সুরক্ষার জন্য ব্যবহার হয়,তা হচ্ছে ক্যান্সারের কারণ।      তবে অতিরিক্ত লাভের আশায় নানা রকমের কেমিকেল মিশিয়ে বড় পাতিলে করে চুলায় রেখে নকল বেবি লোশন তৈরির প্রমাণ পেয়েছে র‍্যাব।

ঢাকার কেরানীগঞ্জে আতাসুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে এভাবে তৈরি জনসন বেবি লোশনসহ প্রায় সাড়ে ৮ কোটি টাকার নকল বেবি কসমেটিক্স সামগ্রী জব্দ করা হয়েছে। আটক করা হয়েছে ৫ জনকে। মঙ্গলবার মধ্যরাত পর্যন্ত চলা এই অভিযানের নেতৃত্ব দেন র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম।

অভিযানে র‍্যাব দেখতে পায়, দেড়ঘণ্টা পর চুলা থেকে নামিয়ে সেগুলোতে সুগন্ধি মিশিয়ে বাজারের জনসন বেবি লোশনের হুবহু নকল বোতলে ঢুকানো হচ্ছে। এছাড়া সেখানে জনসন বেবি অয়েল, অলিভ অয়েল, কুমারিকা হেয়ার ওয়েল, ডাবর আমলা তেলসহ আরও বেশ কয়েকটি বিদেশি পণ্যের নকল উৎপাদনের খোঁজ পান তারা।

র‍্যাব জানায়, অতিরিক্ত লাভের আশায় এসব নকল পণ্য তৈরি করছে একটি চক্র, সাথে জড়িত বাড়ির মালিকেরা। অভিযানের বিষয়ে র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারোয়ার আলম গণমাধ্যমকে বলেন, এখানে তৈরি কসমেটিক্স পরবর্তীতে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে। বাচ্চাদের জন্য এগুলো অত্যন্ত ক্ষতিকারক। এমনকি ক্যান্সারের কারণ হতে পারে। ফলে এসব নকল পণ্য কিনে ক্রেতারা যেমন প্রতারিত হচ্ছেন, তেমনি স্বাস্থ্যঝুঁকিতে পড়ছেন।

সাধারণ জনগন বলছেন, এসব অপকর্মে যারা জড়িত তাদের সাথে বিপনন কাজে জড়িত তাদেরও আইনের আওতায় আনা দরকার।           

See More

Latest Photos